লেখকের ডায়রি

জোকার কি অস্কার পাবে?

অস্কার
ছন্নছাড়া অভাব

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
জোকার সিনেমায় জোয়াকিন ফোনিক্স

সংবিধানে লেখা নেই। তবু সিনেমা যেন দুই ভাবে বিভক্ত সারা বিশ্বে। একভাগ হলো উতসব কেন্দ্রীক। উতসবে যাবে, পুরস্কার বাগিয়ে আনবে, আলাপ আলোচনায় জমে উঠবে, সিনেমা হলে দর্শকের খাতা শুন্যও হতে পারে, কিংবা কখনো দর্শকে পরিপূর্ণ। আরেকভাগ হলো-উতসবগুলোতে তারা নামই দেয় না, সিনেমা হলে আসার আগেই চোটপাটে অস্থির, মুক্তির দিনে দর্শক ভেঙে পড়বে হলে। দুই দলের ভক্তরাই একে অপরকে দেখে নাক সিঁটকানো চলে। চলে তর্ক, বিতর্ক।

কিন্তু ২০১৯ সাল যেন সিনেমার জন্য আশির্বাদ স্বরূপ। পৃথিবীর সবচেয়ে নান্দনিক চলচ্চিত্র উতসবটির সেরা ছবির মুকুটটি পড়ল কি-না জনপ্রিয় ঘরানার সিনেমা। যার উতসবে যাওয়ার কোনো কথাই ছিল না। চলচ্চিত্র মহলে প্রশ্ন, এটা কি তবে কোনো পরিবর্তন? নাকি স্রেফ জোক? করা হলো জোকারি? সে আমরা জানি না। তবে এটা জানি, এবার ভেনিস চলচ্চিত্র উতসবে সেরা সিনেমার পুরস্কার জিতেছে কমিক বই থেকে উঠে আসা সিনেমা জোকার। কমিক বইয়ের চরিত্র নিয়ে সিনেমা ভেনিসে পুরস্কার পাওয়ায় নড়েচড়ে বসেছেন চলচ্চিত্রবোদ্ধারা। তবে কি এবার চলচ্চিত্রের জমকালো আসর অস্কারেও কোনো নতুন চমক আসছে? এর আগে কমিক বই ভিত্তিক সিনেমা কিংবা সুপারহিরো ভিত্তিক সিনেমা নানা শাখায় পুরস্কার পেলেও সেরা ছবির পুরস্কার ছিল অধরা। উতসবের স্বাতন্ত্র্য বজায় রাখতে হয়তো অস্কার কমিটিই ইচ্ছে করলেও কোনো সুপারহিরো সিনেমাকে সেরার মুকুটটি দিতে পারেননি। এবার ভেনিস যে পথ দেখালো, এখন গুঞ্জন চারদিকে, তাতে হাঁটবে কি অস্কার?

আপনাদের মনে আছে, ২০০৯ সালে অস্কার কমিটি সেরা ছবির লড়াইয়ে রেখেছিল স্লামডগ মিলিওনিয়ার ও মিল্ক ছবি দুটিকে। কিন্তু অস্কারে সেরা ছবির তালিকায় থাকা পাঁচটি ছবির মধ্যে ছিল না ক্রিস্টোফার নোলানের মতো পরিচালকের সিনেমা দ্য ডার্ক নাইট। কারণ ডার্ক নাইট ছিল কমিক বই থেকে উঠে আসা ব্যাটম্যান সিরিজের ছবি। ছবিটি কেবল কয়েকটি টেকনিক্যাল শাখায় মনোনীত হয়েছিল। এর কয়েক বছর পরে ২০০৮ সালে এসে ৬৪ বছরের ইতিহাসে পরিবর্তন আনে অ্যাকাডেমি কমিটি। পাঁচের বদলে অস্কারে লড়াই করার সুযাগ পায় ১০টি ছবি।

এরপর সময় যতই পেরোয়, কমিক বই ভিত্তিক ছবিগুলো অস্কারে একের পর এক হানা দিতে থাকে। এই ধরুন না, লোগান সিনেমার কথা। অস্কারে সিনেমাটি সেরা চিত্রনাট্য বিভাগে মনোনীত হয়েছিল। আর ২০১৮ সালে সেরা ছবির কাতারেই নাম লিখিয়ে ফেলল মার্ভেলের ছবি ব্ল্যাকপ্যান্থার। শুধু তাই নয়, তিনটি পুরস্কার ঝুলিতেও ভরে ছবিটি। অস্কার কর্তৃপক্ষের এই আচরণে অনেকেই ধরে নিয়েছেন, সুপারহিরো কিংবা কমিক বই থেকে উঠে আসা কাল্পনিক গল্পের ছবিগুলোর প্রতিও চোখ রাখছে অ্যাকাডেমির হর্তাকর্তারা।

এবার ভেনিসে জোকার সিনেমাটির সেরা ছবির পুরস্কার স্বর্ণসিংহ জেতায় এই পথ যেন আরও মসৃণ হলো। অনেকেই বলছেন, অস্কারে আর ব্রাত্য থাকছে না কমিক বই থেকে উঠে আসা ছবিগুলো। জোকারের হাত ধরে লেখা হতে পারে অস্কার ইতিহাসে নতুন অধ্যায়। কারণ, স্বর্ণসিংহ জেতা সিনেমা অস্কার ঘরে তোলে এমন নজির বহু আছে।