২০১৯: পর্ব-৩
বলা হয়ে থাকে সিনেমা আসলে পরিচালকের হাতের খেলা আর এর কুশীলবরা হলেন ‘ডিরেক্টরস কাস্ট‘। বাংলা ছবিতেও সাম্প্রতিক সময়ে অভিনেতা অভিনেত্রীদের পাশাপাশি সমভাবে আলোচনায় আসতে দেখেছি নির্মাতাদের । নির্মাণশৈলী, বিভিন্ন ধারা আর আলোচনা সমালোচনার কারণেই মূলত ঢাকাই ছবিতে সামনে চলে আসেন কিছু নির্মাতা। এ বছরও তাঁদের কয়েকজন থাকবেন আলোচনার টেবিলে।
৫ পরিচালক

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী
বছরের শুরুতেই সিনেমা মুক্তি পাবার আগে আলোচনায় উঠে এসেছেন নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। এর আগে ‘ডুব-নো বোড অব রোজেস‘ ছবিটি মুক্তির আগেই আটকে গিয়েছিল তথ্য মন্ত্রণালয়ের বিশেষ নির্দেশে। এবার তাঁর আলোচিত ছবি ‘শনিবার বিকেল‘ আটকে গেল এর কাহিনী প্রেক্ষাপটের ইস্যুতে।
তবে অনেকে বলছেন, ডুব ছবিতে হুমায়ূন আহমেদের জীবন সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি থাকলেও ফারুকীর সৃষ্ট ধোঁয়াশাই ছবিটি মুক্তির পথ আটকে দেয় এবং এভাবেই দর্শকদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে। ফলে অনাকাঙ্খিতভাবেই এর প্রচারণা হয়ে যায় পক্ষে কিংবা বিপক্ষে। তবে এবারও অনেকের ধারনা হলি আর্টিজেন হামলা ইস্যুতে ছবিটি বানানো হয়েছে। যদিও গণমাধ্যমে ফারুকী বলেছেন এটি হলি আর্টিজান থেকে অনুপ্রাণিত। ২০১৬ সালে ঢাকার হলি আর্টিজানে ঘটা নির্মম সন্ত্রাসী হামলার ছায়া অবলম্বনে ছবিটি নির্মিত হয়েছে, এমন খবর গত এক বছর ধরে প্রকাশ পেয়ে আসছে দেশি ও বিদেশি গণমাধ্যমে। যদিও নির্মাতা ফারুকী এ বিষয়ে সরাসরি কিছু স্বীকার করেননি। তিনি বলেছেন, সিনেমাটি মোটেই এটি হোলে আর্টিজান বেকারিতে হামলার ঘটনা নিয়ে নয়, ওই ঘটনার ‘অনুপ্রেরণায়’ নির্মিত একটি কাহিনীচিত্র।
ছবিটি বাংলাদেশ থেকে প্রযোজনা করছে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও ছবিয়াল, আরও আছেন ভারতের শ্যাম সুন্দর দে। মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর এ ছবিতে কাজ করছেন ফিলিস্তিনের অভিনেতা ইয়াদ হুরানি। সঙ্গে বরাবরের মতো রয়েছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। এ ছাড়া থাকছেন জাহিদ হাসান, মামুনুর রশীদ, কলকাতার পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ও। ছবিটি নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মুক্তি পেলে দেখার বিষয় হবে দর্শক কিভাবে ছবিটি নেয়।

তৌকির আহমেদ
গত বছর নির্মাণ করেছিলেন হালদা। বেশ প্রশংসা পেয়েছে দর্শক ও সমালোচক উভয়ের কাছে। তৌকির আগেও বেশ কিছু ভালো চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন। তবে অজ্ঞাতনামা নির্মাণের পরে তৌকির আহমেদকে অন্যভাবে চিনতে শুরু করে লোকজন। অজ্ঞাতনামা ও হালদা সিনেমা দিয়ে বিদেশেও পুরস্কার ও প্রশংসা কুড়িয়েছেন। অভিনেতা ও পরিচালক তৌকির আহমেদের এবারের তুরুপের তাস বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন। ভাষা আন্দোলনকে প্রেক্ষাপট রেখে তিনি নির্মাণ করেছেন সিনেমা ফাগুন হাওয়ায়। এই সময়ের তরুণ অভিনেতা সিয়াম আহমেদ ও নুসরাত ইমরোজ তিশার অসাধারণ রসায়নে দেখা যাবে মফস্বলের ভাষা আন্দোলনের সময়কার একটি গল্প। এই সিনেমাতে অভিনয় করেছেন ভারতের যশপাল শর্মাও। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি ভাষার মাসেই মুক্তি পাবে সিনেমাটি। সবার আশা অজ্ঞাতনামা, হালদার পরে এটিও একটি দারুণ সিনেমা হতে যাচ্ছে তৌকির আহমেদের হাত ধরে।

শামীম আহমেদ রনী
ফেব্রুয়ারিতেই মুক্তি পেতে যাচ্ছে ঢাকাই চলচ্চিত্রের প্রাণ শাকিব খানের ছবি ‘শাহেনশাহ’। ছবিটি পরিচালনা করেছেন মেন্টাল, বসগিরি, রংবাজ ও ধ্যাত্তেরিকি‘র পরিচালক শামীম আহমেদ রনী। ‘শাহেনশাহ’ প্রযোজনা করছে শাপলা মিডিয়ার সেলিম খান। শাকিব খান, রোদেলা জান্নাত ছাড়াও অভিনয় করছেন নুসরাত ফারিয়া, মিশা সওদাগর ,অমিত হাসান, নানা শাহ, ডি জে সোহেল, লিটন হাসমি, সাদেক বাচ্চু প্রমুখ। ইতিমধ্যে লাইভ টেকনোলজিস এর ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পেয়েছে ‘শাহেন শাহ’ সিনেমার টিজার। জানা গেছে, শাকিবের নতুন এই সিনেমাটি মুক্তি পাবে ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ দিকে। হলগুলোর নতুন বছরের ব্যবসা অনেকটাই নির্ভর করছে ছবিটির ওপর আর পরিচালক রনী যথারীতি থাকবেন আলোচনায়।

রায়হান রাফি
রায়হান রাফি মাত্র দুটি ছবি বানিয়েই এরই মধ্যে চলে এসেছেন আলোচনায়। নতুন বছরে কি বানাতে যাচ্ছেন তা নিয়ে চলছে গুঞ্জন। গত বছর প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা নির্মাণ করেছেন রায়হান রাফি। প্রথম সিনেমা ‘পোড়ামন ২’ দিয়ে নির্মাতা হিসেবে নিজের মেধার জানান দিয়েছেন তিনি। পরের সিনেমা ‘দহন’ দিয়ে শক্ত করেছেন নিজের অবস্থান। দুটি ছবিই দারুণ ব্যবসা করেছে সিনেমা বাজারে। গল্প বলার মুন্সিয়ানায় মুগ্ধ হয়েছেন সমালোচক, দর্শকসহ চলচ্চিত্রবোদ্ধারাও। কদিন আগে জাজ মাল্টিমিডিয়ার পেজে ‘জিন’ ছবির একটি ফার্স্ট লুক প্রকাশ পাবার পরই জানা যায় রায়হান রাফির পরবর্তী ছবি নিয়ে। জানা গেছে, মার্চ মাসে শুরু করবেন নতুন সিনেমার দৃশ্যধারণের কাজ। ছবিটি প্রযোজনায় থাকবে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ঈদুল ফিতরে মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছে নিয়ে ছবিটির প্রি-প্রোডাকশনের কাজ চলছে বেশ জোরেশোরেই। ছবিতে প্রথমবারের মত জুটি বাধতে যাচ্ছেন রোশান, পূজা। এ ছাড়াও রাফির নাম ঠিক না হওয়া আরেকটি ছবিতে দেখা যাবে সিয়াম, পূজা ও রোশান তিনজনই। ছবিটি আগামী ঈদুল ফিতরে মুক্তি দেওয়ার লক্ষ্যে তৈরি হচ্ছে।

ফয়সাল আহমেদ
ঢাকা অ্যাটাক সফল হওয়ার পর আরেকটি পুলিশি অ্যাকশন থ্রিলার ছবি আসবে এ বছর, নাম- মিশন এক্সট্রিম। মিশন এক্সট্রিম পরিচালনা করবেন ফয়সাল আহমেদ। তিনি ঢাকা অ্যাটাক ছবির প্রধান সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। মার্চ মাস থেকে শুটিং শুরু করার পরিকল্পনা চূড়ান্ত হয়েছে। ছবিটি প্রযোজনা করছে কপ ক্রিয়েশন। অ্যাকশন নির্ভর মৌলিক গল্পের ছবি হবে এটি। ’ঢাকা অ্যাটাকের মত ‘মিশন এক্সট্রিম’-এ আছেন আরিফিন শুভ, তাসকিন। তবে শিগগিরই বাকি শিল্পীদের নাম জানানো হবে। ছবিটি দর্শকের আগ্রহের শীর্ষে থাকবে আর চ্যালেঞ্জের সামনে থাকবেন নতুন পরিচালক ফয়সাল তা বলাই যায়।

এ ছাড়াও চলতি বছর আরো আলোচনায় থাকবেন পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল। নেয়ামুল গুণী অভিনেতা ও নির্মাতা আফজাল হোসেনের সঙ্গে দীর্ঘসময় কাজ করেছেন। এরপর থেকেই তৈরি করেছেন এক ঘণ্টার নাটক, বেশ কিছু ধারাবাহিকসহ ‘এক কাপ চা’ চলচ্চিত্রটি। চলতি বছর তার পরের ছবি ‘জ্যাম’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে, ছবির দৃশ্যধারন শেষ। গোলাম সোহরাব দোদুলের প্রথম ছবি ‘সাপলুডু’, মালেক আফসারীর সাথে শাকিব খানের নাম ঠিক না হওয়া ছবি, শাহিন সুমনের ‘একটু প্রেম দরকার’ ছবিগুলোর জন্য আলোচনায় থাকবেন তারাও।