স্বাধীন ধারার চলচ্চিত্রকারদের প্রথম পছন্দ নিজের সিনেমাটিকে বিদেশি দর্শকদের সামনে তুলে ধরা। বিদেশি দর্শকের সামনে সিনেমাটি তুলে ধরতে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবগুলোর জুড়ি নেই। এশিয়াতে এমন চলচ্চিত্র উৎসবগুলোর মধ্যে বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব অন্যতম। বুসানে চলচ্চিত্র নেওয়া শুরু হয়েছে সম্প্রতি। এই আসরে থাকল উৎসবটি এবং চলচ্চিত্র জমা দেওয়ার নিয়ম নিয়ে টুকিটাকি।

বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র জমা নেওয়া হবে আগামী ২৬ জুনের মধ্যে। এবং এশিয়ার মধ্যে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র জমা নেওয়া হবে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে। আপনি একজন চলচ্চিত্রকার হলে আপনার চলচ্চিত্রটি এখানে উদ্বোধনী প্রদর্শনী করাতে পারেন। আর চলচ্চিত্রপ্রেমী হলে দেখে আসতে পারেন নতুন সব সিনেমা। চলুন তার আগে সংক্ষেপে জেনে নেই উৎসবটি সম্পর্কে।

বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব এশিয়ার নামকরা কয়েকটি চলচ্চিত্র উৎসবের একটি। দক্ষিণ কোরিয়ার বুসান শহরে হেইউন্দে নামক জায়গায় প্রতি বছর উৎসবটি অনুষ্ঠিত হয়। হংকং আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ও টোকিও আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের মতোই এটি এশিয়ার সিনেমা নিয়ে আন্তর্জাতিক মেলার একটি। ১৯৯৬ সাল থেকে শুরু হয়েছে এই উৎসবের যাত্রা। প্রথম থেকেই নতুন সিনেমা ও তরুণ পরিচালকদের পরিচিত করানোই ছিল উৎসবটির লক্ষ্য। এই উৎসবের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য দিক হলো, তরুণ চলচ্চিত্রকারদের মেলবন্ধন ও তাদের উৎসাহ প্রদান করা। এই উৎসবে চলচ্চিত্রকার হিসেবে তরুণেরা যেমন অগ্রগণ্য তেমনি দর্শক হিসেবেও তরুণদের প্রধাণ্য বেশি দেখা যায়। উৎসবটির সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো—তরুণ মেধাবী চলচ্চিত্রকারদের বাছাই করে সামনে নিয়ে আসতে এই উৎসবটির জুড়ি নেই। এবার চলুন দেখে নেই, কীভাবে আপনার সিনেমাটি পাঠাবেন বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে।

সাধারণ নিয়ম

এই উৎসবে পূর্ণদৈর্ঘ্য, স্বল্পদৈর্ঘ্য, প্রামাণ্যচিত্র ও অ্যানিমেশন চলচ্চিত্র জমা দেওয়া যাবে।

উৎসবে জমা দেওয়ার আগে টেলিভিশন কিংবা ইন্টারনেটের কোনো প্ল্যাটফর্মে সিনেমাটি প্রদর্শনী করা যাবে না।

গুরুত্বপূর্ণ: এই উৎসবের মাধ্যমে সিনেমাটির উদ্বোধনী প্রদর্শনী উৎসব কর্তৃপক্ষ খুব গুরুত্বের সঙ্গে দেখে।

চলচ্চিত্রটি ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসের আগে এবং ২০১৯ সালে সেপ্টেম্বর মাসের পরে সম্পূর্ণ করা চলবে না।

এর আগে উৎসবটি থেকে চলচ্চিত্রটি বাদ পড়লে পুনরায় এটি পাঠানো যাবে না।

স্বল্পদৈর্ঘ্যের ক্ষেত্রে কেবল এশিয়ার দেশগুলো থেকেই চলচ্চিত্র পাঠানো যাবে।

পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ৬০ মিনিট অথবা তার বেশি হতে হবে।

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ৩০ মিনিটের বেশি হওয়া যাবে না।

সাবমিশন ফরম উৎসবের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যবে।

ইংরেজি ও কোরিয় ভাষা বাদে সব ভাষার চলচ্চিত্রের ক্ষেত্রে ইংরেজিতে সাবটাইটেল দিতে হবে।

চলচ্চিত্র জমা দিতে ফরম্যাটি হিসেবে ডিসিপি (ডি–সিনেমা), ৩৫ মিমি, এইচডিক্যাম অথবা (ডিজি)বেটা ফরম্যাটে থাকতে হবে।

ডেট অব নোটিফিকেশন: ২০১৯ এর আগস্টের শেষ।

সাবমিশন ফি ফ্রি।

ডেডলাইন

পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র: ২৬ জুন, ২০১৯

স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র: ৩১ জুলাই, ২০১৯

বিস্তারিত জানতে চোখ বুলাতে পারেন http://www.biff.kr/eng/addon/10000001/page.asp?page_num=459

এই লিংকে। বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বিচারক হিসেবে ছিলেন নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। এ ছাড়া তরুণ অনেক নির্মাতা ও প্রযোজক উৎসবটির নানা আয়োজনে যুক্ত ছিলেন। গত আসরে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের সিনেমা ইতি, তোমারই ঢাকা এই উৎসবে উদ্বোধনী প্রদর্শনী হয়। ২৪তম বুসান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব চলবে এ বছরের ৩ থেকে ১২ অক্টোবর।