আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে অজয় দেবগণ, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, রাকুল প্রীত অভিনীত ছবি ‘থ্যাঙ্ক গড’।

কিন্তু মুক্তির আগেই বিতর্কে জড়াল ছবিটি। এক হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের কাছথেকে ছবিটি ব্যান করার দাবি উঠেছে। উত্তরপ্রদেশে আগেই উঠেছিল এই দাবি, এবার একই ঘটনা ঘটল কর্নাটকে।

উত্তরপ্রদেশে তিন অভিনেতা এবং ছবির পরিচালক ইন্দ্র কুমারের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করায় অভিযোগ দায়ের হয়েছিল।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ajay Devgn (@ajaydevgn)

গত ৯ সেপ্টেম্বর থ্যাঙ্ক গডের ট্রেলার মুক্তি পায়। ট্রেলারে মানুষের পাপ-পুণ্যের হিসেবরক্ষক চিত্রগুপ্ত এবং যমরাজকে আধুনিক পোশাক পরে থাকতে দেখা যায়। এতেই চটেছে কর্নাটকের হিন্দু জনজাগৃতী সমিতি।

সংগঠনের মুখপাত্র মোহন গৌড়া বলেন, ‘ট্রেলারে হিন্দু দেবতাদের উপহাস করতে দেখা গেছে অভিনেতাদের।

অভিব্যক্তি প্রকাশের স্বাধীনতার নাম করে যমরাজ এবং চিত্রগুপ্তের উপহাস আমরা কিছুতেই সহ্য করব না। ট্রেলার প্রকাশের আগে কি সেন্সর বোর্ড ঘুমাচ্ছিল?’

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Ajay Devgn (@ajaydevgn)

সংগঠনটির দাবি, সেন্সর বোর্ড যেন ছবিটিকে সার্টিফিকেট না দেয়। কেন্দ্রীয় এবং রাজ্যগুলোর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এই ছবিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করুক, দাবি করা হয়েছে এমনটাও।

হিন্দু জনজাগৃতী সমিতির জাতীয় মুখপাত্র রমেশ শিন্ডে বলেন, ‘আজ ভারতে সবসময় হিন্দু ধর্মের বিরোধী কাজ করতে দেখা যাচ্ছে বলিউডকে। সেটা পিকের মতো ছবি হোক কিংবা এখনকার থ্যাঙ্ক গড। সবক্ষেত্রে হিন্দু দেবতাদের হাস্য-বিনোদনের রূপে দেখানো হয়।’